Skip to content
Home » নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম

নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম

আসসালামু আলাইকুম সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা আপনাদেরকে নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি নাম ক আর্টিকেলে স্বাগতম। আপনি কি নগদ একাউন্ট খুলতে চান কিংবা নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে চান তবে এই গুরুত্বপূর্ণ কাজটি অতি সহজে উপস্থাপন করেছি আমাদের আজকের এই ব্লক পোস্টে।

আর্টিকেল পোস্টে আমরা আলোচনা করেছি:-

নগদ একাউন্টের পিন ভুলে গেলে করণীয, কিভাবে নগদ একাউন্ট খুলতে হয়, নগদ একাউন্ট খুললে কত টাকা বোনাস, নগদ ইসলামিক একাউন্ট কি নগদ, একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২২ ,একাউন্ট খোলার তিনটি পদ্ধতি ও একাউন্টের সুবিধা, ২০২২ নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি বা উপায় ২০২২, নগদ একাউন্ট কোড ,নগদ মোবাইল ব্যাংকিং, নগদ একাউন্ট লক হলে করণীয় ,নগদ উদ্যোক্তা একাউন্ট খোলার নিয়ম ,নগদ কল সেন্টার নাম্বার, বাটন মোবাইলে নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,,একটি আইডি কার্ড দিয়ে কয়েকটি নগদ একাউন্ট খোলা যায় ,নগদ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম ,নগদ খোলার পদ্ধতি ও অফার সমূহ ,নগদের কাস্টমার কেয়ার নাম্বার নগদ খোলার সহজ পদ্ধতি , কিভাবে নগদ একাউন্ট খুলবেন, নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম ও চেক করার ইউএসএসডি কোড, কিভাবে নগদ ব্যালেন্স চেক করবেন ,জাতীয় পরিচয় পত্র ছাড়াই নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম, একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম, পাসপোর্ট দিয়ে নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম ,নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি ও রেজিস্ট্রেশন অফার ওপেন নগদ, একাউন্ট নগদ অ্যাকাউন্ট দেখার নিয়ম ও নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি জেনে নিন 2022 ,নগদ একাউন্ট খোলার সবচেয়ে সহজ ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

নগদ একাউন্ট খোলার সহজ উপায়

ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন সেবা নগদ টিভিতে দেখানো বিজ্ঞাপনের কল্যাণের এই বিষয়টি সবার জানার থাকার কথা নগদ হচ্ছে বাংলাদেশ সরকারের ডাক বিভাগের একটি ডিজিটাল আর্থিক সেবা যার মাধ্যমে খুব সহজেই টাকা লেনদেন সম্ভব। ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে যাত্রা শুরু হয় এই সেবাটির এটি অনেকটা বহুল জনপ্রিয় বিকাশের মতোই চলুন জেনে নেই কিভাবে ঘরে বসেই নগদ একাউন্ট খুলতে পারে ন।

গ্রামীণফোন রবি এয়ারটেল টেলিটক বাংলালিংক সহ সকল সিম থেকে নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম

গ্রামীণফোন রবি airtel banglalink teletalk ইত্যাদি এসব যেকোনো মোবাইলের সিম ব্যবহারকারী গন স্টার ওয়ান সিক্স সেভেন ডায়াল করে নিজের একাউন্টের পিনকোড সেট করলেই একটিভ হয়ে যাবে অ্যাকাউন্ট। বিশেষ তথ্য আপনার যদি স্মার্ট ফোন নাও থাকে ছোট বাটন ফোন থেকে থাকে সেই বাটন ফোন থেকেও বাটন টিপে নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন এছাড়াও স্মার্টফোন থেকেও উপরোক্ত নম্বর ডায়াল করে নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন অথবা স্মার্টফোনে নগদ অ্যাপস ডাউনলোড করে সেখান থেকেও খুলতে পারবেন।

নগদ একাউন্ট খোলার সহজ নিয়ম

নগদ অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট খোলার একদম সহজ নিয়ম হচ্ছে নগদ অ্যাপটি ইন্সটল করুন ও অ্যাপটিতে প্রবেশ করুন।  একাউন্ট নাম্বার ওটিপি ও সঠিক পিন দিয়ে অ্যাপসটিতে লগইন করুন।  এরপর ভাষা বাংলা হলে ব্যালেন্স জানতে ট্যাগ করুন ও ভাষা ইংরেজি হলে ইংরেজিতে ট্যাপ ফর ব্যালেন্স বাটন চাপুন এরপর আপনার নগদ একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখতে পারবেন।

নগদ একাউন্টের সুবিধা ও নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সম্পর্কে বিস্তারিত নিচে আলোচনা করছি:

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর সুবিধা রয়েছে অনেক যুগের পরিক্রমায় ডিজিটাল লেনদেনের ক্ষেত্রে সরকারি পর্যায়ে নবদী নিয়ে এসেছে সবচেয়ে কম খরচে লেনদেনসহ আরো আনুষাঙ্গিক অফার। নগদ একাউন্টের বিশেষ কিছু সুবিধা রয়েছে যা আমরা পার্ট বাই পার্ট নিচে আলোচনা করছি।

*নিরাপত্তা:

ব্যবস্থাগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সব সময় উচ্চ মর্যাদায় রাখা হয় কেননা লেনদেনের মাধ্যমে মানুষের অর্থ ঝুঁকিমুক্ত রাখার চেষ্টায় থাকেন তাই নগদ একটি সরকারি সেবা হয় অন্যান্য লেনদেন ব্যবস্থা থেকে একটি অধিকতর সিকিউরিটি সম্পন্ন।

*অপেক্ষাকৃত কম চার্জ: প্রিয় পাঠক বাংলাদেশের যতগুলি ডিজিটাল লেনদেন কেন্দ্রিক মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থা রয়েছে প্রত্যেকটি ডিভাইসের থেকে নগদ একটি বিশেষ সুবিধা সম্পন্ন মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থা।

*নগদ উদ্ভাবনের শুরু থেকেই বিশেষ একটি অফার নিয়ে মার্কেটিং করেছে সেটি হচ্ছে নগদে সবচেয়ে লেনদেনের চার্জ কম এছাড়াও বিভিন্ন ক্ষেত্রে নগদের বিশেষ অফার এবং স্যার রয়েছে তাই নগদ ব্যবহারে শহর থেকে গ্রামান্তরে প্রত্যেকে আগ্রহী হয়ে উঠছে।

*অফার:

নতুন ব্যবহারকারীদের একাউন্ট খুলে লাখপতি হওয়ার মতো অফার দিয়েছে নগদ নতুন অফার জানতে তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন।
নগদ একাউন্ট এর মাধ্যমে লেনদেনে অফার সমূহ

নগদ একাউন্ট ব্যবহার করে লেনদেনে পাওয়া যাবে বিভিন্ন এক্সক্লুসিভ অফার ও সুবিধা। যেমন:

* ইভালিতে সর্বোচ্চ ২০০০ টাকা পর্যন্ত ডিসকাউন্ট নগদ ব্যবহার করে ইভালিতে পণ্য ক্রয় পেমেন্ট করলে পাওয়া যাবে ১০% বার সর্বোচ্চ বিশ হাজার টাকা পর্যন্ত ডিসকাউন্ট অফার বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন নগদ এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে।

* এছাড়াও ওয়ালটন পণ্য কোভিড 19 টেস্ট ফি এছাড়াও বিভিন্ন সেক্টরে নগদে ব্যবহার করার কারণে মূল্য ছাড় পাওয়া যায়।

* নগদ ব্যবহারে নিরাপদ থাকার উপায় -ডিজিটাল লেনদেন ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা বাড়ার সাথে সাথে বেড়েছে কালোবাজারি ও অসাধু লোকদের আনাগোনা তাই নগদ মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থার সাথে সংযুক্ত থাকতে সর্বোচ্চ সতর্কতা মেনে চলা উচিত নগদ কর্তৃক প্রদত্ত নিয়মাবলী নিচে দেওয়া হল

*নগদ কখনো গ্রাহকের কাছে ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড বা ওটিপি বা একাউন্টের পিন জানতে চাইবে না তাই কেউ ওটিপি বা একাউন্টের পিন চাইলে ধরে নিবেন আপনি কোন প্রতারকের পাল্লায় পড়েছেন।

*১৬১৬৭ অথবা ০৯৬০৯৬ ১৬৭ শুধুমাত্র এই দুইটি নাম্বার থেকেই নগদ ব্যবহারকারীদের সাথে যোগাযোগ করে পরামর্শ কিংবা সমস্যার সমাধান করা হবে অন্য যেকোনো নাম্বার থেকে যদি আপনাকে কোন প্রকার অফার কিংবা সমাধানের প্রলোভন দেখানো হয় বুঝতে হবে এটি সম্পূর্ণ প্রতারকের পাল্লা।

*এছাড়াও নগদ সংক্রান্ত কোনো সমস্যা বা প্রশ্ন থাকলে কল করতে পারেন এই দুইটি নির্দিষ্ট নাম্বারে ১৬১৬৭ অথবা ০৯৬০৯৬১ ৬১৬৭

নগদ একাউন্ট ব্যবহারের শর্তাবলী

নগদ একাউন্ট তৈরির পূর্বে প্রত্যেক ব্যবহারকারীর জন্য কিছু শর্ত প্রযোজ্য করে দেওয়া হয়েছে। নগদ একাউন্ট নিবন্ধন বা রেজিস্ট্রেশন এর ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য যেসব শর্তাবলী প্রযোজ্য সেগুলো হলো-

*দেশে প্রচলিত আইন ও ডাক বিভাগ প্রচলিত ধারা সমূহ অনুসরণ করে নগদের কার্যক্রম চালিত হয় প্রত্যেক নগদ ও গ্রাহককে এসব নীতিমালা বাধ্যতামূলকভাবে মানতে হবে.

*ভুল নগদ নাম্বার প্রদান কোন ধরনের আর্থিক ক্ষতির শিকার হলে তার দায় নগদ কর্তৃপক্ষ বহন করবে না।

*নগদ একাউন্টে লেনদেনের ক্ষেত্রে চার্জ সমূহ সকল গ্রাহকের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক পর্যাপ্ত ব্যালেন্সের অভাবে লেনদেন সম্পূর্ণ না হলে তার দায়ভার সম্পূর্ণ গ্রাহকে র।

*ক্যাশ ইন ক্যাশ আউট পেমেন্ট ইত্যাদি ক্ষেত্রে গ্রাহকের তার লেনদেনের গ্রহণযোগ্যতা যাচাই করতে হবে এসব সম্পর্কিত কোন অভিযোগ এর দায় নগদ কর্তৃপক্ষ বহন করবে না।

*নগদ ব্যবহার করে লেনদেনকালীন প্রাপক ও প্রেরিত অর্থের যথার্থতা নিশ্চিতের দায়িত্ব ব্যবহারকারী ভুল তথ্য প্রদানে কোন ক্ষতির সম্মুখীন হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না।

*নগদ ব্যবহার সম্পর্কিত মূল্য ও ব্যয় নিয়ম অনুযায়ী একাউন্ট থেকে সময় মত কেটে নেওয়া হবে।

*মানি লটারি প্রতিরোধ আইন 2012 সন্ত্রাসবিরোধী আইন ২০১৯ বাংলাদেশ ডাক বিভাগ কর্তৃক যারইকৃত নীতিমালা অনুযায়ী গ্রাহক তার নগদ সম্পর্কিত তথ্য চাহিবে মাত্র নগদকে প্রদানে বাধ্য থাকিবে।

*গ্রাহকের একাউন্ট ও লেনদেন সংক্রান্ত তথ্যের গোপনীয়তা বজায় রাখবে নগর তবে আদালতের আদেশ অথবা আইন অনুযায়ী অনুমোদিত কোন ব্যক্তির প্রয়োজনে তথ্য প্রকাশ বা প্রদান করতে পারবে নগদ।

*একজন গ্রাহক তার নগদ একাউন্ট এর পিন নাম্বার কখনোই কারো কাছে কোন অবস্থাতেই প্রকাশ করতে পারবেন না তিন নাম্বারের গোপনীয়তা নষ্টের ফলে কোন ধরনের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হলে দায়ভার সম্পূর্ণরূপে ব্যবহারকারীর নিজের।

*সিম বা ফোন হারিয়ে গেলে তৎক্ষণাৎ নগদ হেল্পলাইন ১৬১৬৭ এই নাম্বারে কল করে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিতে পারবে

*আর্থিক লেনদেন সম্পর্কিত লেনদেন নগদ একাউন্ট ব্যবহার নীতিমালা বহির্ভূত এই ধরনের কোন কাজ নগদ এর দৃষ্টিকোচ্চার হলে সে ক্ষেত্রে আইনক ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষমতা রাখে নগদ

*নগদ গ্রাহকের কাছে প্রচার সংক্রান্ত ফোন কল কিংবা এসএমএসের প্রেরনের সম্পূর্ণ অধিকার রাখে।

*নগদ কর্তৃক প্রেরিত যেকোনো নির্দেশনা মানতে সর্বদা বাধ্য থাকবে সকল নগদ গ্রাহকগণ।

*নগদ এর সিস্টেমে সংরক্ষিত লেনদেন সংশ্লিষ্ট তথ্যসমূহ যেকোনো দ্বন্দ্ব নিরশনে প্রাথমিক প্রমাণ হিসেবে বিবেচিত।

*সম্মানিত পাঠক বন্ধুরা আজকের এই নগদ একাউন্ট খোলার সহজ নিয়ম ব্লগ পোস্ট থেকে আপনি কতটা উপকৃত হলেন আপনার কি নগদ একাউন্ট আছে নাকি খুলতে চাচ্ছেন অবশ্যই আমাদেরকে কমেন্ট করে জানাবেন সকলে ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন আসসালামু আলাইকুম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *