Skip to content
Home » প্রেগনেন্ট টেস্ট কিভাবে করে

প্রেগনেন্ট টেস্ট কিভাবে করে

প্রিয় ভিউয়ার্স আপনাদেরকে আমাদের পেজে স্বাগতম।আজ আমরা আপনাদের মাঝে এসে হাজির হয়েছি গুরুত্বপূর্ণ একটি বিশেষ সম্পর্কে শেয়ার করার জন্য।আমরা যারা মেয়ে মানুষ তারা মা হবার এই খুশিটা এত বেশি উপভোগ করে ফেলি যে খুশিতে আমরা আত্মহারা হয়ে যাই। আমরা তাই আজ আপনাদের মাঝে শেয়ার করতে এসেছি আপনি কিভাবে প্রেগন্যান্ট টেস্ট করবেন। আপনি যে প্রেগনেন্ট হয়েছেন এটা বুঝবেন কি উপায় বা কোন কাজটি করলে বুঝতে পারবেন। যখন প্রথম মা হবেন তখন এই দিনটি আপনার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আপনার মনের ভিতরে অনেক প্রশ্ন জাগতে থাকবে ।যে আমার পিড়ড বন্ধ হয়েছে, আমি কি মা হতে যাচ্ছি। কিন্তু কিভাবে আমি কোন পদ্ধতিতে টেস্ট করলে সঠিক তথ্য জানতে পারবো। এসব কোশ্চেন এর উত্তর জানাতে আজ আমরা আপনাদের মাঝে এসেছি। আপনাদের আর দ্বিধাদ্বন্দ্বে  পড়তে হবে না।

আমাদের এই পোস্টটি ভিজিট করলেই আপনি স্টেপ বাই স্টেপ জানতে পারবেন কিভাবে প্রেগন্যান্ট টেস্ট করবেন। এবং প্রেগনেন্ট টেস্ট করে সঠিক ফলাফল জানতে পারবেন। প্রেগনেন্ট টেস্ট করার জন্য বাজারে প্রেগন্যান্ট টেস্ট কিট আছে সেটা আপনি বাসায় কিনে নিয়ে এসে প্রেগনেন্ট টেস্ট করতে পারবেন। কিন্তু কিভাবে করবেন সঠিক নিয়ম জানতে হবে। আর সঠিক নিয়ম জানার জন্যই আমরা আপনাদেরকে তথ্যটি শেয়ার করতে এসেছি।। যদিও প্রেগনেন্ট টেস্ট কিট এর স্টিকে লেখা থাকে। তবুও আপনি সঠিকভাবে জানা থাকলে আপনার কোন ভুল হবে না। তবে চলুন আর দেরি না করে বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের সঙ্গেই থাকুন দেখতে থাকুন।

প্রেগন্যান্ট টেস্ট কিভাবে করবেন

আপনার পিরিয়ড অথবা মাসিক যে তারিখে হবার কথা ছিল। সেই তারিখ চলে যাবার এক সপ্তাহ পর আপনি যদি পেগনেন্ট টেস্ট করেন ।তাহলে আপনি সঠিক ফলাফল জানতে পারবেন। আবার অনেকের শরীরের সিনটম দেখেও বুঝতে পারা যায় যে সে বেবি কনসেপ্টকরেছে। আবার অনেকের কোন সিনটম বোঝা যায় না কিন্তু সে প্রেগন্যান্ট হয়েছে।আপনি সঠিক তথ্য অর্থাৎ সঠিকভাবে জানতে হলে আপনাকে এক সপ্তাহ পরই টেস্ট করতে হবে তাহলে আপনার জন্য সঠিক তথ্য চলে। এখন প্রেগনেন্ট টেস্ট কিভাবে করবেন এটা হচ্ছে মূল বিষয় ।

যখন কেউ প্রথম মা হয় সে কিন্তু বুঝতে পারে না সে কিভাবে প্রেগন্যান্ট টেস্ট করবে। আর তার ভিতরে ভয় কাজ করে।মাথার ভিতরে ঘুরতে থাকে আমি কিভাবে টেস্ট করব ,আর সঠিক তথ্য জানতে পারবো তো, নাকি টেস্ট করতে গিয়ে কোন ভুল হয়ে যাবে ,টেস্টের মধ্যে ঝামেলা। এমন সব কোশ্চেন গুলো তাকে বিরক্ত করতে থাকে।আর নয় ঝামেলা আর নয় বিরক্ত মা যখন হচ্ছে খুশিতেই সব সংবাদ পেয়ে যাবেন। বাজারে প্রেগনেন্ট টেস্ট কিট পাওয়া যায়।

ডিজিটাল প্রেগন্যান্ট টেস্ট কিট থেকে আপনি সঠিক তথ্য যেকোনো সময় জানতে পারবেন এটার জন্য আপনাকে সকাল বেলার ইউরিনটি ধরে টেস্ট করার প্রয়োজন নেই যখন তখন এর ইউরিন ধরে টেস্ট করলে আপনি সঠিক তথ্য জানতে পারবেন। কিন্তু সকালের ইউরিন দিয়ে টেস্ট করলে আপনার জন্য তথ্যটি জানা যেমন সহজ ।আর তথ্যটি একেবারে সঠিক এজন্য বলা হয়ে থাকে। সকালে ইউরিন থেকে আপনি প্রেগন্যান্ট টেস্ট করবেন।প্রেগনেন্ট টেস্ট কিট থেকে আপনি কিভাবে টেস্ট করবেন ওটা হচ্ছে আপনার প্রেগনেন্ট টেস্ট কিটে সুন্দর করে লেখা থাকে যেটা পড়ে আপনি অনায়াসেই টেস্ট করতে পারবেন।

প্রেগনেন্ট টেস্ট করার ফলাফল কিভাবে জানবেন

যখন আপনি প্রেগনেন্ট টেস্ট কিট দিয়ে ইউরনের মাধ্যমে টেস্ট করবেন সেখানে যদি লাল দুই দাগ উঠে। তাহলে ,আপনি বুঝবেন টেস্টের ফলাফল পজেটিভ। আর যদি দেখেন লাল একটি দাগ উঠেছে তাহলে বুঝবেন টেস্ট এর ফলাফল নেগেটিভ।আবার অনেক সময় দুই দাগ উঠে কিন্তু একটি দাগ হাফসা অর্থাৎ সম্পূর্ণ লাল রং ধারণ করে না। কিন্তু সেই ক্ষেত্রেও আপনি ওটাকে পজিটিভ হিসেবে নিবেন ।কেননা দুই দাগ মানে পজিটিভ বলা হয় থাকে ।আর এক দাগ মানে নেগেটিভ বলা হয়ে থাকে।তাহলে তো বুঝতেই পারছেন আমাদের এই পোস্টের মাধ্যমে কিভাবে আপনি জানবেন আপনি প্রেগনেন্ট অর্থাৎ মা হতে চলেছেন।আপনার গর্ভে বড় হতে চলছে ছোট্ট একটি বাচ্চা যে বাচ্চা আপনাকে বড় হয়ে মা বলে ডাকবে আর ওই বাচ্চাটির সব ধরনের খেয়াল শুধু আপনাকেই রাখতে হবে কারণ আপনি যে মা।

সর্বশেষে বলতে চাচ্ছি যে ,এতক্ষণ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদেরকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। আপনাদের মূল্যবান সময় আমাদের সঙ্গে দেবার জন্য ধন্যবাদ। আমরা এতক্ষণ চেষ্টা করছি, আপনাদেরকে জানানোর জন্য প্রেগন্যান্ট টেস্ট কিভাবে করবেন এই বিষয়টি।আমরা আশা রাখছি ,আমাদের এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনি সম্পূর্ণভাবে জানতে পারছেন প্রেগন্যান্ট টেস্ট কিভাবে করতে হয়। তবে ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। তবে আজ আর নয় আবার অন্য কোনদিন অন্য কোন পোস্টে আপনাদের সঙ্গে দেখা হবে।সেই পর্যন্ত ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আপনাদের দীর্ঘায়ু কামনা করছি আল্লাহ হাফেজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *