স্বাস্থ্য

নরমাল ডেলিভারির কতদিন পর মাসিক ,জন্ম নিয়ন্ত্রণ ও সহবাস সম্পর্কে বিস্তারিত

আসসালামুআলাইকুম প্রিয় পাঠক-পাঠিকা ,আজ আমরা আপনাদের কাছে এসেছি নরমাল ডেলিভারির কতদিন পর মাসিক, জন্মনিয়ন্ত্রণ ও সহবাস এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে, নরমাল ডেলিভারি আমাদের দেশে তো প্রায় শোনাই যায়না।

আমরা মায়েরা এখন নরমাল ডেলিভারিতে কষ্ট এটা সহ্য করতে না পারার কারণে সিজারের পথ বেছে নিয়েছি। তো এটা ভাবি না যে, নরমাল ডেলিভারির কষ্টটা সাময়িক সিজারের কষ্টটা দীর্ঘদিন। একটা সিজার মানে সারাটা জীবন তার ভোগ পোহাতে হয়। নরমাল ডেলিভারি মানে শুধু সেই দিনটাই কষ্ট ভোগ করতে হয় পরবর্তী জীবনে সুখ আর শান্তি কোনো ধরাবাধা নিয়ম নেই। আপনারা যদি একটু কষ্ট করে নরমাল ডেলিভারির জন্য অপেক্ষা করেন তবে সারা জীবন সুখে থাকবেন আশা করি

 নরমাল ডেলিভারির কতদিন পর মাসিক হয়

এ সম্পর্কে নিম্নে কিছু তথ্য বর্ণনা করা হলো: গর্ভ অবস্থায় মায়ের পুরো নয় মাস সময় প্রজন্ত মাসিক বন্ধ থাকে। সন্তান জন্মদানের পর মাসিক শুরু হতে কিছুটা সময় লাগে। এই সময়টা এক এক জনের এক এক রকম হয়ে থাকে। সাধারণত মাসিক বা ঋতুস্রাব হতে নির্ভর করে মায়ের উপর। মা কিভাবে তার বাচ্চাকে ব্রেস্ট ফিডিং করাচ্ছে। মা যদি তার সন্তানকে এক্সক্লুসিভঃ ব্রেস্ট ফিডিংকরায়।তবে সে মায়ের ছয় থেকে আট মাস পর্যন্ত সময় মাসিক বা ঋতুস্রাব বন্ধ থাকবে।

আবার সময় সীমা আরো ও বাড়তে পারে। অনেক ক্ষেত্রে দুই তিন মাস পরেও মাসিক বা ঋতুস্রাব হতে পারে। তা নিয়ে দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই। অনেকক্ষেত্রে আবার সময় সীমা 18 মাস থেকে 2 বছর ও হতে পারে।এক্ষেত্রে সন্তানের বয়স যখন ছয় মাস হবে তখন থেকে পিল খাওয়া শুরু করবে তাহলে মাসিক বা ঋতুস্রাব নিয়মিত হবে।

নরমাল ডেলিভারির পর জন্মনিয়ন্ত্রণ

এ সম্পর্কে নিচে কিছু তথ্য বর্ণনা করা হলো: যখন একটি বাচ্চার জন্ম দেওয়া হয়ে যায় তখন যদি মা কোন ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ না করে সেই ক্ষেত্রে মায়ের পরবর্তীতে আবার একটি সন্তান জন্ম দেওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে।তাই মাকে অবশ্যই জন্মনিয়ন্ত্রণের জন্য কোন একটি উপায় বেছে নিতে হবে।জন্ম নিয়ন্ত্রণের জন্য কনডম আছে পিল আছে। দীর্ঘমেয়াদী শরীরে ক্যাপ লাগাতে পারেন। পিল বাচ্চা জন্মের 21 দিন পর থেকে খাওয়া শুরু করা যাবে।

এই পিল প্রতিদিন একই সময়ে খেতে হবে।যদি 21 দিন পর পিল খাওয়া শুরু করে তাহলে প্রথম দুই দিন সম্পূর্ণ নিরাপদ থাকবে না। এ জন্য কনডম ব্যবহার করতে হবে। কনডম ব্যবহারের ফলে ও জন্ম নিয়ন্ত্রণ করা যায় যদিও উভয়ের সম্মতি থাকে। কনডম ব্যবহারের ফলে যৌনবাহিত রোগ থেকে নিরাপদ রাখে। আরো বেশি চিন্তা মুক্ত থাকতে হলে দীর্ঘমেয়াদি জন্মনিয়ন্ত্রণ পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। এটি হচ্ছে শরীরে একটি ক্যাপ লাগানো থাকে তিন বছরের মেয়াদ আছে চার বছরের আছে পাঁচ বছরে আছে।

নরমাল ডেলিভারির পর সহবাস

সম্পর্কে কিছু তথ্য নিচে প্রদান করা হলো: একজন নারী দীর্ঘ নয় মাস গর্ভ অবস্থায় থাকার পর সন্তান ভূমিষ্ঠ করে পৃথিবীর বুকে। সন্তান জন্মদানের ঠিক কতদিন পর সহবাস করা যাবে এর কোনো ধরাবাধা নিয়ম নেই। তবে হ্যাঁ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তিন থেকে চার মাস পর সহবাস করা উত্তম ।আর সে ক্ষেত্রে নারী যদি সহবাস করতে চায় এবং নিজেকে প্রস্তুত রাখায় কোন সমস্যা নাই তো, সহবাস করতে পারেন। সহবাস হচ্ছে স্বামী-স্ত্রীর তৃপ্তির জন্য করা হয়।

সহবাসের সময় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যে নারীর যৌন , ব্যাথা পাচ্ছে কিনা রক্তক্ষরণ হচ্ছে কিনা এগুলোর প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। কেননা একটি সন্তান জন্মদানের পর মায়ের শরীর সঠিক হতে একটি মাসের প্রয়োজন। শিশু জন্মের পর হরমনের পরিবর্তন হয় যৌন অঙ্গ আগের মত আদ্র থাকেনা সূক্ষ্ম হয়ে যায এ ক্ষেত্রে কোন ধরনের জেল ব্যবহার করতে পারেন।

পরিশেষে বলতে চাচ্ছি ,যে আমরা এতক্ষন চেষ্টা করেছি আপনাদের কে উপরের তথ্যগুলো জানানোর জন্য, আশা করছি আপনারা নিজেও জানবেন এবং অন্য কে জানাবেন। ধন্যবাদ এতক্ষন আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য।

[contact-form][contact-field label=”Name” type=”name” required=”true” /][contact-field label=”Email” type=”email” required=”true” /][contact-field label=”Website” type=”url” /][contact-field label=”Message” type=”textarea” /][/contact-form]

[contact-form][contact-field label=”Name” type=”name” required=”true” /][contact-field label=”Email” type=”email” required=”true” /][contact-field label=”Website” type=”url” /][contact-field label=”Message” type=”textarea” /][/contact-form]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *