Skip to content
Home » সিঙ্গাপুরের সেরা ব্যাংকের তালিকা

সিঙ্গাপুরের সেরা ব্যাংকের তালিকা

সিঙ্গাপুরের জনপ্রিয় ১০ টি ব্যাংক । সিঙ্গাপুরের নাগরিক এবং প্রবাসীদের জন্য সিঙ্গাপুর ব্যাংকে লেনদেন করার প্রয়োজন হয়। তাই সিঙ্গাপুরের কোন ব্যাংক ভালো কোন ব্যাংকের রেংক কেমন লেনদেন কেমন জনপ্রিয়তা কেমন তা জানা জরুরি।
আমাদের কাছে সিঙ্গাপুরের জনপ্রিয় বেঙ্গলির একটি সুবিশাল তালিকা রয়েছে যা আপনার জন্য জানা জরুরি। সেরা ব্যাংক গুলির গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সহ আদর্শ একটি আর্টিকেল প্রকাশ করতে যাচ্ছি আজকে। আপনি যদি সিঙ্গাপুরে বসবাস করে থাকেন কিংবা সিঙ্গাপুরে থাকার জনপ্রিয় ব্যাংক গুলির প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে চান তবে এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন আশা করছি আপনার কাঙ্ক্ষিত চাহিদা পূরণের সহায়ক হবে এই পোস্টটি।

সিঙ্গাপুরের সেরা ১০ টি ব্যাংকের তালিকা

সিঙ্গাপুরের সরকারের নীতি এবং অর্থনীতির সুবিন্যস্ত নীতিমালা থাকায় এই দেশের ব্যাংকিং নীতিমালায় এসেছে আমল পরিবর্তন এবং গণমুখী হওয়ায় বিদেশি অনেক ব্যাংক তাদের শাখা খুলেছে সিঙ্গাপুরে। তাই জনপ্রিয়তা সরকারি গ্রহণযোগ্যতা এবং লেনদেনের দিক থেকে সকল ব্যাংক থেকে বাছাই করে দশটি ব্যাংক সম্পর্কে জানাবো এই আর্টিকেলে।সরকারের দুর্দান্ত কৌশল ব্যাংকগুলিকে সহজেই সারা বিশ্বের সাথে যোগাযোগ করতে সহায়তা করে। সিঙ্গাপুরের উন্নত জীবন যাত্রা ব্যাংক গুলিকে আরো জনপ্রিয় এবং ব্যবহার উপযোগী করে তুলেছে।তাই সিঙ্গাপুর কে “ব্যাংকিং হাব” বলা হয়।
২০১৩ সালে সিঙ্গাপুর ব্যাংকের সম্পদের পরিমাণ ছিল দুই ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। তাহলে আমরা বুঝতে পারছি সিঙ্গাপুরের ব্যাংকিং ব্যবস্থা কতটা উন্নত এবং সম্ভাবনাময়। তাই সিঙ্গাপুরে যারা লেনদেন করতে চান কিংবা সিঙ্গাপুর ব্যাংক সম্পর্কে ধারণা নিতে চান তাদের জন্য দশটি জনপ্রিয় ব্যাংক তালিকা ও তাদের গঠনতন্ত্র প্রকাশ করছি।

সিঙ্গাপুরের সেরা ১০ টি ব্যাংকের তালিকা

সিঙ্গাপুরের ব্যাংক কাঠামো অনুযায়ী দশটি জনপ্রিয় ব্যাংকের তালিকার মধ্যে ধারাবাহিক ভাবে প্রকাশ করছি :
১)  ডিবিএস গ্রুপ
২)  বিদেশি চীনা ব্যাংকিং কর্পোরেশন
৩)  ইউনাইটেড ওভারসিস ব্যাংক
৪)  ব্যাংক অফ সিঙ্গাপুর
৫)  সিটি ব্যাংক সিঙ্গাপুর
৬)  সি আই সি সিঙ্গাপুর
৭)  এইচ এস বি সি সিঙ্গাপুর
৮)  May Bank সিঙ্গাপুর
৯)  স্টান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক সিঙ্গাপুর
১০)  আরএইচবি ব্যাংক সিঙ্গাপুর

আমরা এতক্ষণ শেয়ার করেছি সিঙ্গাপুরে লেনদেন সহ অর্থনৈতিক অঙ্গনে প্রভাব বিস্তার করা দশটি জনপ্রিয় ব্যাংকের তালিকা। এবারে আমরা বিস্তারিত জানবো এই ব্যাংকগুলি কেন এক থেকে দশ পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে সাজানো হয়েছে। তাদের জমাকৃত অর্থ এবং ব্যাংকিং সুযোগ-সুবিধা সহ কেন জনপ্রিয় আসুন জানার চেষ্টা করি।

১. ডিবিএস গ্রুপ “

এই ব্যাংকের অর্জিত মোট সম্পদের পরিপ্রেক্ষিতে এই ব্যাংক তালিকার শীর্ষে রয়েছে। এছাড়াও এশিয়ার বৃহত্তম আর্থিক কর্পোরেশন গুলির মধ্যে এটি অন্যতম। ২০১৭ সালের জুনের শেষে এই ব্যাংকের অর্জিত মোট সম্পদের পরিমাণ ছিল মার্কিন ৪৮৬.৬৯৯ বিলিয়ন ডলার। মার্চ ২০১৭ এর শেষে এই ব্যাংকের মোট নিড মুনাফা ছিল ১.২ বিলিয়ন ডলার। এই ব্যাংক ৪.৬ মিলিয়ন গ্রাহকদের পরিষেবা দিয়ে থাকে। এই ব্যাংকে প্রায় ২২ হাজার লোক কাজ করে। এই ব্যাংকের হেডকোয়ার্টার মেরিনা বে ফাইন্যান্সিয়াল সেন্টারে অবস্থিত।

২.বিদেশি চীনা ব্যাংকিং কর্পোরেশন

এই ব্যাংকের অর্জিত মোট সম্পদের পরিপ্রেক্ষিতে ও সি বি সি দ্বিতীয় শীর্ষ জনপ্রিয় ব্যাংক। জুন ২০১৭ এর শেষে এই ব্যাংক এর অর্জিত মোট সম্পদের পরিমাণ ছিল ৪৩৯.৬০১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এটি ১৯৩২ সালে প্রতিষ্ঠিত একটি ব্যাংক এর 18 টিরও বেশি দেশে শাখা রয়েছে সবমিলিয়ে সারা বিশ্বে এর মোট 600 টির বেশি শাখা রয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানে ৩০ হাজার লোক নির্মিত কাজ করে। এই ব্যাংকের হেডকোয়ার্টার চুলিয়া স্টেটে অবস্থিত।

৩.ইউনাইটেড ওভারসিস ব্যাংক

এই ব্যাংকের মোট সম্পদের হিসেব অনুসারে ইউ ওবি তৃতীয় শীর্ষস্থানীয় ব্যাংক। জুন ২০১৭ এর শেষের দিকে এই ব্যাংকের মোট সম্পদের পরিমাণ ছিল ৩৪৪.৪১৪ মার্কিন মিলিয়ন ডলার।
মার্ক ১৭ এর শেষের দিকে টোটাল লভ্যাংশ ছিল ৮০৭ মিলিয়ন ডলার। এই ব্যাংক ১৯৩৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯ টিরও বেশি দেশে এই ব্যাংকে উপস্থিতি রয়েছে এবং সারা বিশ্বে এর মোট ৫০০টি শাখা রয়েছে এখানে প্রায় ২৫ হাজার লোক কাজ করে।
এই ব্যাংকের হেডকোয়ার্টার রেপ্লেসটিআই অবস্থিত।

৪.ব্যাঙ্ক অফ সিঙ্গাপুর

এই ব্যাংক ও সি বি সি এর সহযোগী একটি প্রতিষ্ঠান। সহায়ক ব্যাংক হওয়া সত্বেও এটি একটি জনপ্রিয় এবং বিশাল ব্যাংক। ২০১৭ সালের এপ্রিলের শেষের দিকে এই ব্যাংকের অর্জিত মোট সম্পদ ছিল ১১৫.৯৪ বিলিয়ন ডলার। গ্লোবাল ফাইন্যান্স এবং এশিয়ান প্রাইভেট ব্যাংক দ্বারা ২০১১ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত সেরা বেসরকারি ব্যাংক হিসেবে এটিকে লিস্টে নামকরণ করা হয়েছে। এই ব্যাংকের হেডকোয়ার্টার মার্কেট স্ট্রিটে অবস্থিত। হংকং ,মেলিনা ,লন্ডন এবং দুবাইতে ব্যাঙ্ক অফ সিঙ্গাপুরের অনেক শাখা রয়েছে।

৫.সিটি ব্যাংক সিঙ্গাপুর

ইট সিঙ্গাপুরে প্রথম আমেরিকান ব্যাংক। এই ব্যাংক প্রায় ১৫ বছর আগে ১৯০২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এই ব্যাংকটি সিঙ্গাপুরের বৃহত্তম নিয়োগ কর্তাদের মধ্যে একটি। এটি ১০ হাজার তেরো বেশি কর্মচারী নিয়োগ করেছে এটি ১৫০০ টেরও বেশি গ্রাহক টাচ পয়েন্ট এবং সিঙ্গাপুরে বৃষ্টির বেশি শাখা রয়েছে এছাড়াও এটির অনেক ব্যবসায়িক ইউনিট রয়েছে সিটি কমার্শিয়াল ব্যাংক, সিটি গ্লোবাল কনজিউমার ব্যাংকিং ইত্যাদি। স্বাস্থ্য বীমা ভ্রমণ বীমা ইত্যাদি এর প্রধান কোয়ার্টার টেমাসেক এভিনিতে অবস্থিত।

৬.সি আই সি সিঙ্গাপুর

এই প্রতিষ্ঠান টি ব্যাপক জনপ্রিয়তার সাথে অর্থনৈতিক লেনদেন চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের প্রধান টার্গেট হলো এস এম ই ব্যাংকিং পরিষেবা এবং তারা সিঙ্গাপুরের গ্রাহকদের জন্য সবচেয়ে ব্যাপক সম্পদ ব্যবস্থাপনা সমাধানও অফার করে থাকে।সিআইসি ক্রেডিট মোটুয়েল গ্রুপের সম্পূর্ণ মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান। এই ব্যাংক ১৯৮৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং এটি এশিয়ার স্পেসিফিক এর হেডকোয়ার্টার হিসেবে বিবেচিত হয়। এর হেডকোয়ার্টার মেরিনা বে ফাইন্যান্সিয়াল সেন্টারে অবস্থিত। এই ব্যাংক আর্থিক পণ্যের বিস্তৃত পরিসর অফার করে থাকে।

৭.এইচ এস বি সি সিঙ্গাপুর

এই ব্যাংকটি সিঙ্গাপুর প্রাচীনতম শীর্ষ স্থানীয় বেঙ্গুলির মধ্যে অন্যতম একটি ব্যাংক। এটি প্রায় 140 বছর আগে ১৮৭৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এতে প্রায় তিন হাজার লোক কাজ করে থাকে। সিঙ্গাপুর জুড়ে এটি দশটিও বেশি শাখা রয়েছে এবং দেশে এটির ৪০ টি এটিএম রয়েছে। সদর দপ্তর কুলিয়ার কুয়েতে অবস্থিত। এইচএসবিসি ব্যাংক গ্রাহকদের জন্য ব্যক্তিগত এবং বাণিজ্যিক ব্যাংকিং পণ্যের সম্পূর্ণ বিমাসহ অফার করে।

৮.May Bank সিঙ্গাপুর

এই ব্যাংকটি সিঙ্গাপুরের অতি প্রাচীনতম একটি ব্যাংক এটি প্রায় ৫৭ বছর আগে ১৯৬০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এই প্রতিষ্ঠানে ১৮০০ জনেরও বেশি কর্মচারী নিয়োগ রয়েছে এবং তারা সিঙ্গাপুরের গ্রাহকদের জন্য বর্তমান এবং সঞ্চয় একাউন্ট, ইসলামিক আমানত, ঋণ প্রদানের পণ্য ,বিনিয়োগ ইত্যাদির মতো পরিপূর্ণ সেবা প্রদান করছে। এই প্রতিষ্ঠান সিঙ্গাপুরের ২৭ টি স্থানে পরিষেবা প্রদান করে। এটি এশিয়ানের শীর্ষ পাঁচ ব্যাংক হিসেবে স্থান পেয়েছে এবং এটি সিঙ্গাপুরের একটি যোগ্যতার সম্পন্ন ফুল ব্যাংক।

৯.স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক সিঙ্গাপুর

বি এল সি এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে এর পরিচিতি। এই প্রতিষ্ঠান প্রায় দেড়শ বছর আগে সিঙ্গাপুরে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। সারাদেশে এই প্রতিষ্ঠানের 18 টির বেশি শাখা রয়েছে এবং এটির ৩০ টি এটিএম রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটিতে পাঁচটি অগ্রাধিকার মূলক ব্যাংকিং কেন্দ্র রয়েছে। বর্তমানে এটির মোট সম্পদ রয়েছে ৩৩ বিলিয়ন আমেরিকান ডলার এবং গ্রাহক ঋণ ২৩ বিলিয়ন ডলার। এর হেডকোয়ার্টার মেরিনা বে ফাইন্যান্সিয়াল সেন্টারে অবস্থিত। অক্টোবর ১৯৯৯ সালে এটি সিঙ্গাপুরে কোয়ালিফাই ফুল ব্যাংক কিউএফডি এর লাইসেন্স পেয়েছে।

১০.আর এইচ বি ব্যাংক সিঙ্গাপুর

এই প্রতিষ্ঠান প্রায় ৫৬ বছর আগে ১৯৬১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। ওই সময়ে এই প্রতিষ্ঠানের নাম ছিল ইউনাইটেড মালায়ন ব্যাংকিং কর্পোরেশন বের হয় ইউএমবিসি। এটি সার্বজনীন ব্যাংক। সিঙ্গাপুরের সাতটি স্থানে এর উপস্থিতি রয়েছে। প্রাথমিক লক্ষ্য হলো সর্বাধিক গ্রাহক সন্তুষ্টির ওপর এই কারণেই এটি সিঙ্গাপুর এবং মালয়েশিয়ার একমাত্র ব্যাংক যা ব্যাংকিং সেবাতে সবচেয়ে মর্যাদা পূর্ণ বছরের সেরা গ্রাহক অভিজ্ঞতা ব্যবস্থাপনা পুরস্কার জিতেছে। পুরস্কারটি এ পি সি এস সি হংকং দ্বারা দেওয়া হয়। মফস্বল সেবা দিতে সিঙ্গাপুরে অসংখ্য ব্যাংক রয়েছে যার মধ্যে দেশ ও বিশ্বে প্রভাব অর্জন করা দশটি সেরা ব্যাংক তালিকা প্রকাশ করেছি। নিচে আরো জানিয়েছি সিঙ্গাপুরে সেরা ব্যাংকের তালিকা।

সিংগাপুরের সেরা ব্যাংকের তালিকা বর্তমানে সিঙ্গাপুরে ১১১ টি বাণিজ্যিক ব্যাংক রয়েছে। ৪৯ টি মার্চেন্ট ব্যাংক এবং ৪৫ টি ব্যাংক এর প্রতিনিধি অফিস রয়েছে। সিঙ্গাপুরের ব্যাংকিং শিল্প সিঙ্গাপুরের মুদ্রা কর্তৃপক্ষ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। সিঙ্গাপুরের জনপ্রিয় ব্যাংক গুলির মধ্যে রয়েছে:

  • ইউনাইটেড ওভারসিজ ব্যাঙ্ক
  • ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক অফ সিঙ্গাপুর
  • ওভারসিয়া চাইনিজ ব্যাংকিং কর্পোরেশন
  • পি ও এস বি
  • মেয়ে ব্যাংক স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড
  • ব্যাংক অফ সিঙ্গাপুর
  • সিটি ব্যাংক সিঙ্গাপুর
  • এসবিআই সিঙ্গাপুর
  • ব্যাংকক ব্যাংক সিঙ্গাপুর
  • সি আই এম বি ব্যাংক সিঙ্গাপুর
  • আইসিআইসিআই সিঙ্গাপুর ব্যাংক
  • আর এইচ বি সিঙ্গাপুর ব্যাংক
  • ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া সিঙ্গাপুর
  • ইন্ডিয়ান ওভারসিস ব্যাংক সিঙ্গাপুর
  • এ এন জেট সিঙ্গাপুর
  • জে.পি মরগান সিঙ্গাপুর
  • এইচ এস বি সি সিঙ্গাপুর
  • হং লিওং ফিন্যান্স ব্যাংক
  • বিএনপি পারিবাস ব্যাংক
  • ওসি বিসি সিঙ্গাপুর

উপসংহার

সিঙ্গাপুরের নাগরিক হিসেবে কিংবা আপনি যদি সিঙ্গাপুরে প্রবাসী থেকে থাকেন তবে প্রয়োজন বশতই আপনাকে ব্যাংক একাউন্ট খুলতে হয় কিংবা ব্যাংকের লেনদেন করতে হয়। তাই সিঙ্গাপুরে কোন কোন ব্যাংক কি ধরনের সেবা প্রদান করে দেশ ও বিদেশে উক্ত ব্যাংকের প্রভাব এবং সম্পদ কেমন এই সম্পর্কে ধারণা রেখে আপনাকে ব্যাংক নির্বাচন করতে হবে।তাই আজকের আর্টিকেলে আমরা জানিয়েছি সিঙ্গাপুরের জনপ্রিয় কিছু ব্যাংকের নাম এবং কার্য পদ্ধতি। আশা করছি এই পোস্টটি অর্থনৈতিক লেনদেনের ক্ষেত্রে আপনাকে বিশেষ সহযোগিতা করবে। পোস্ট সংক্রান্ত মন্তব্য কিংবা প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট বক্সে জানাবেন ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *