Skip to content
Home » উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম

সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুগণ আশা করি আপনারা মহান আল্লাহ তাআলার রহমতে সবাই অনেক ভালো আছেন। পাঠক বন্ধুগণ আজকে আমরা আপনাদের মাঝে সম্পূর্ণ ব্যতিক্রমধর্মী একটি নিবন্ধ সম্পর্কে আলোচনা করব। আমাদের আজকের এই নিবন্ধটি হচ্ছে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম সংক্রান্ত একটি নিবন্ধ। আপনি যদি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম সম্পর্কে অনুসন্ধান করে থাকেন তাহলে আপনাকে আমাদের আজকের এই নিবন্ধে স্বাগতম। আমরা এই নিবন্ধটিতে আপনাদের মাঝে তুলে ধরব কিভাবে উপজেলা সরকারি অফিসার বরাবর দরখাস্ত লিখতে হয়। অনেক সময় জীবনের নানা জটিলতায় বা প্রয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার প্রয়োজন পড়ে। এটি তো আর সাধারণ দরখাস্তের মত নয় তাই অবশ্যই আমাদের উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত এলাকার সকল প্রকার নিয়ম কানুন সম্পর্কে সঠিক ধারণা রাখতে হবে। এক্ষেত্রে আমরা আপনাদেরকে সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করব।

বাংলাদেশের সকল জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য বাংলাদেশ সরকার প্রতিটি উপজেলা অর্জন করে নির্বাহী অফিসার নিয়োগ দিয়েছেন। যিনি উপজেলা বাসী সকল সাধারণ জনগণের মৌলিক চাহিদা গুলো থেকে শুরু করে সব ধরনের সমস্যার তাদেরকে সহায়তা প্রদান করে থাকেন। অনেক সময় দেখা যায় মানুষের জীবনের বিভিন্ন রকম সমস্যা বা জটিলতায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের শরণাপন্ন হতে হয়। আর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের শরণাপন্ন হতে হলে অবশ্যই প্রথমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি দরখাস্ত প্রেরণ করতে হবে। আর এই দরখাস্তটি অবশ্যই সঠিক নিয়ম অনুসারে লিখতে হবে। যেহেতু এটি একটি সরকারি অফিসারের দরখাস্ত সেহেতু অবশ্যই এটি অন্যান্য দরখাস্ত থেকে ব্যতিক্রমধর্মী একটি দরখাস্ত। এজন্য আমাদের অবশ্যই উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম গুলো সঠিকভাবে আয়ত্ত করতে হবে। তাহলে আমরা আমাদের সকল প্রকার সমস্যার সমাধান ও যেকোনো বিষয়ে রিপোর্ট করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর সুস্পষ্টভাবে দরখাস্ত প্রেরণ করতে পারব।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম –

বাংলাদেশের জনগণের সেবায় নিয়োজিত একজন অফিসার হচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। যিনি একটি উপজেলা সঠিকভাবে পরিচালনা করে থাকেন। যার মাধ্যমে উপজেলার সকল প্রকারের উন্নয়ন ও কল্যাণ সাধিত হয়। আজকে আমরা নিয়ে এসেছি সেই উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম সংক্রান্ত একটি পোস্ট। আমরা আমাদের এই পোস্টটিতে তুলে ধরব কিভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর সঠিকভাবে দরখাস্ত লিখতে হয়। আপনারা আমাদের এই পোস্ট থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম গুলো সংগ্রহ করে আপনাদের যেকোন প্রয়োজনে বা কোন কিছু অভিযোগ প্রদানের জন্য সুন্দরভাবে সুস্পষ্ট ভাষায় দরখাস্ত লিখতে পারবেন। এই দরখাস্ত প্রেরণের মাধ্যমে আপনি আপনার সমস্যার সমাধান করতে পারবেন।

  • প্রথমে সবার উপরে তারিখ লিখতে হয়।
  • এরপর প্রাপকের নাম, পদবী এবং ঠিকানা লিখতে হবে।
  • এর নিচে আপনার আবেদন এর বিষয় লিখতে হবে। আবেদনের বিষয় আপনার আবেদনের মূল অংশ।
  • বিষয় লেখার নিচে জনাব/জনাবা শব্দটি লিখতে হয়। তবে বর্তমানে জনাবা লেখা হয় না। তা  জনাব লেখায় শ্রেয়।
  • এরপর আপনার আবেদনপত্রটি যে বিষয়ে লেখা হবে ঠিক সে বিষয়ে নিয়ে আপনার সংক্ষিপ্ত আকারে গঠনমূলকভাবে বর্ণনা করবেন।
  • আপনার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা লেখার পর নিচে বিনীত/ইতি কথাটি লিখতে হয়।
  • এরপর আপনার নাম অর্থাৎ আবেদনকারীর নাম ও ঠিকানা দিতে হবে।
  • এখন আপনার আবেদনপত্রটি একটি সুন্দর খামের মধ্যে রেখে প্রাপকের নিকট পাঠাতে হবে।

নিচে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত লেখার নিয়ম তুলে ধরা হলো:

বরাবর,
উপজেলা নির্বাহী অফিসার
নিজ জায়গার নাম…………….।
বিষয়:     ……………    অনুমতি প্রসঙ্গে।
জনাব,
আপনি যে বিষয় টি নিয়ে লিখতে চান ……………………… তার বিবরণ দিতে হবে।

অতএব,জনাবের নিকট বিনীত আবেদন এই যে, এইরকম মহান ব্যক্তির অবদানের কথা বিবেচনা করে সরকারের নীতিমালার আলোকে অনতিবিলম্বে ……………………………… অনুমতি প্রদান করে গুনগতমান সম্পূর্ণ  সুযোগ প্রদান করা হউক।
বিনীত নিবেদন,
যে বা যারা লিখছেন তার ঠিকানা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *